কৃষি ব্যবসা আইডিয়া ভিত্তিক ব্লগ

ফুলকপির কার্ড পচা রােগ

ফুলকপির কার্ড পচা রােগ দমন

আমাদের পেইজে অনেকেই ইনবক্সে জানতে চান ফুলকপির বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে তাই আজকে আলোচনা করবো ফুলকপির কার্ড পচা রােগ দমন পদ্ধতি নিয়ে। সবাই মনোযোগ দিয়ে পড়ুন আর শেয়ার করে দিন অন্য কৃষি উদ্যোক্তাদের সাথে।

এই রোগের লক্ষণ:

সাধারণত ছত্রাক আক্রান্ত ফুলকপির কার্ডে প্রথমে বাদামী রংয়ের গােলাকার দাগ দেখা যায়। পরে একাধিক দাগ মিলে বড় দাগ হয় এবং কার্ড পচে যায়। ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ হলে কার্ড দ্রুত পচে যায়।

ক্ষতির ধরণ : 

চারার গোড়া বা শিকড় পচে ঢলে পড়ার মাধ্যমে এ রোগের লক্ষণ প্রকাশ পায়। আক্রান্ত চারার গোড়ার চারদিকে বাদামি বর্ণের পানিভেজা দাগ দেখা যায়। আক্রমণের দুই দিনের মধ্যে চারা গাছটি ঢলে পড়ে ও আক্রান্ত অংশে তুলার মতো সাদা মাইসেলিয়াম দেখা যায় ও অনেক সময় সরিষার মত ছত্রাকের অনুবীজ পাওয়া যায়। চারা টান দিলে সহজে মাটি থেকে উঠে আসে।

এই রোগের প্রতিকার:

১. কার্বেন্ডাজিম গ্রুপের ছত্রাক নাশক ১ গ্রাম/ লি. হরে পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করা (স্প্রে করার পর এক সপ্তাহ। পর্যন্ত কপি তােলা যাবেনা)।

পরবর্তীতে যা যা করবেন না:

১. একই জমিতে বার বার কপি জাতীয় ফসল চাষ করবেন না।
২. আক্রান্ত ক্ষেতে থেকে বীজ সংগ্রহ করবেন না

পরবর্তীতে যা যা করা উচিত:

১. বপনের আগে প্রতি কেজি বীজে ২-৩ গ্রাম প্রােভ্যাক্স বা কার্বেন্ডাজিম মিশিয়ে বীজ শােধন করে নিন।

২. লাল মাটি বা অম্লীয় মাটির ক্ষেত্রে শতাংশ প্রতি চার কেজি হারে ডলােচুন প্রয়ােগ করুন (প্রতি তিন বছরে একবার)

আর্টিকেলটি পড়ে ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে দিন।