কৃষি ব্যবসা আইডিয়া ভিত্তিক ব্লগ

ক্যাপসিকামের এন্থ্রাকনোজ রােগ

ক্যাপসিকামের এন্থ্রাকনোজ রােগ

আমাদের পেইজে অনেকেই ইনবক্সে জানতে চান ক্যাপসিকাম এর বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে তাই আজকে ক্যাপসিকামের এন্থ্রাকনোজ রােগ দমন পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করব।সবাই মনোযোগ দিয়ে পড়ুন আর শেয়ার করে দিন অন্য কৃষি উদ্যোক্তাদের সাথে।

রোগের লক্ষণঃ

এ রােগে আক্রান্ত পাতা, কান্ড ও ফলে বাদামী কলাে দাগ দেখা যায়। পরে দাগগুলাে বড় হয় এবং মরিচ পচে যায়।

এই রোগের প্রতিকারঃ

  • আক্রান্ত পরিত্যক্ত অংশ সংগ্রহ করে নষ্ট করা।
  • রােগ দেখা দিলে প্রতি লিটার পানিতে ০.৫ মিলি টিল্ট ২৫০ ইসি ১০-১২ দিন অন্তর ২ বার স্প্রে করা।

পরবর্তীতে যা যা করবেন নাঃ
১. স্প্রে করার পর ১৫ দিনের মধ্যে সেই মরিচ খাবেন না বা বিক্রি করবেন না

পরবর্তীতে যা যা করবেন :

১. সুস্থ গাছ থেকে বীজ সংগ্রহ করা
২. সুষম সার ব্যবহার করা
৩. প্রােভেক্স বা হােমাই বা বেনলেট ১% দ্বারা বীজ শােধন করা। মিলি রগর টাফগর, সানগর বা সুমিথিয়ন ২ মিলি মিপসিন বা সপসিন মিশিয়ে স্প্রে করা।

যে সকল ঔষধ এখন বাজারে পাওয়া যায় না তার জন্য কৃষি কর্মকর্তাদের সাহায্য নিন। সেই গ্রুপের অন্য কোন কোম্পানির ঔষধ কিনবেন তা জেনে নিবেন।

উপরোক্ত পদ্ধতি গুলো মানে চলে ক্যাপসিকাম মরিচের এনথ্রাকনােজ রোগের দমন হবে। আর্টিকেলটি ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে দিন।