পোকামাকড় ও রোগবালাইফসলের রোগ বালাই দমনরোগ দমন

পেঁয়াজের কন্দ ফেটে যাওয়া সমস্যা সমাধান

পেঁয়াজের কন্দ ফেটে যাওয়া সমস্যা সমাধান দীর্ঘ খরা হলে বা শুষ্ক ও গরম হাওয়ার ফলে শারীরবৃত্তীয় কারণে অথবা মাটি অধিক শক্ত থাকলে অথবা হঠাৎ সেচ দেয়া বা অতিরিক্ত নাইট্রোজেন সার বা হরমোন প্রয়োগের কারণে পেঁয়াজের কন্দ ফেটে যেতে পারে । এর ব্যবস্থাপনা হল: ১. খরা মৌসুমে নিয়মিত পরিমিত সেচ দেওয়া ২. পর্যাপ্ত জৈব সার প্রয়োগ করা। পরবর্তীতে যা যা করবেন না: ১. অতি ঘন করে পেঁয়াজ চাষ করবেন না ২. এ ধরণের সমস্যা অনুমান করতে পারলে ক্ষেতে অতিরিক্ত নাইট্রোজেন সার বা হরমোন প্রয়োগ করবেন না। পরবর্তীতে যা যা করবেন: ১. বপনের পূর্বে জমি উত্তমরুপে চাষ দিয়ে ঝুরঝুরে করুন ২. পর্যাপ্ত জৈব সার প্রয়োগ করুন ...

বিস্তারিত পড়ুন
কবুতরগবাদিপশুর রোগ বালাইপাখীপ্রাণীর রোগবালাই দমনপ্রানিসম্পদরোগ দমন

কবুতরের কিছু রোগ ও এর প্রতিকার

কবুতরের কিছু রোগ ও এর প্রতিকার আবহমানকাল থেকে বাংলাদেশের মানুষ গ্রামীণ পরিবেশে দু’চারটা করে দেশী কবুতর পালন করত। বিদেশী দামী কবুতরও গ্রামে ও শহরে দু’জায়গাতেই পালন করছে। শহরে শখের বশে দু’চারটা করে বিদেশী বিভিন্ন জাতের কবুতর পালন করলেও আজকাল অর্থনৈতিক লাভের আশায় অনেকেই বেশ বড় করে কবুতরের খামার করে আসছে।কবুতর একটি অতি সংবেদনশীল পাখি যা সহজেই বিভিন্ন ধরনের জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে। অতি সতর্কতার সাথে সঠিকভাবে যত্ন না করলে সাধারনতঃ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে। কবুতরের ব্যাকটেরিয়াজনিত রোগ সাধারনতঃ নিম্নলিখিত কারণে হয়ে থাকে- ক) খাদ্যদূষণ জনিত কারণেখ) পানিদূষণ জনিত কারণেগ) বিভিন্ন ধরনের পোকামাকড়ের কামড়ের কারণেঘ) কোন স্থানে ক্ষতের সৃষ্টি হলেঙ) শ্বাসতন্ত্রের সমস্যার জন্য নাক দিয়ে শ্লেষ্মা বা নিঃসৃত পদার্থের কারণে ইত্যাদি। কবুতরের ভাইরাসজনিত রোগ নিম্নলি...

বিস্তারিত পড়ুন
পোকামাকড় ও রোগবালাইরোগ দমন

স্কোয়াশ ফেটে যাওয়া সমস্যা

স্কোয়াশ ফেটে যাওয়া সমস্যা দীর্ঘ খরা হলে বা শুষ্ক ও গরম হাওয়ার ফলে শারীরবৃত্তীয় কারণে অথবা হঠাৎ সেচ দেয়া বা অতিরিক্ত নাইট্রোজেন সার বা হরমোন প্রয়োগের কারণে স্কোয়াশ ফেটে যেতে পারে । এর ব্যবস্থাপনা হল: ১. খরা মৌসুমে নিয়মিত পরিমিত সেচ দেওয়া ২. পর্যাপ্ত জৈব সার প্রয়োগ করা। পরবর্তীতে যা যা ক রবেন না: ১. অতি ঘন করে স্কোয়াশ চাষ করবেন না ২. এ ধরণের সমস্যা অনুমান করতে পারলে ক্ষেতে অতিরিক্ত নাইট্রোজেন সার বা হরমোন প্রয়োগ করবেন না। পরবর্তীতে যা যা করবেন: ১. বপনের পূর্বে জমি উত্তমরুপে চাষ দিয়ে ঝুরঝুরে করুন ২. পর্যাপ্ত জৈব সার প্রয়োগ করুন

বিস্তারিত পড়ুন
পোকামাকড় ও রোগবালাইপোকামাকড় দমনরোগ দমন

ফুলকপির কার্ড পচা রোগ

ফুলকপির কার্ড পচা রোগ লক্ষণ: সাধারণত ছত্রাক আক্রান্ত ফুলকপির কার্ডে প্রথমে বাদামী রংয়ের গোলাকার দাগ দেখা যায় । পরে একাধিক দাগ মিলে বড় দাগ হয় এবং কার্ড পচে যায় । ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ হলে কার্ড দ্রুত পচে যায়। প্রতিকার: ১. কার্বেন্ডাজিম গ্রুপের ছত্রাক নাশক ১ গ্রাম/ লি. হরে পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করা ( স্প্রে করার পর এক সপ্তাহ পর্যন্ত কপি তোলা যাবেনা ) । পরবর্তীতে যা যা করবেন না: ১. একই জমিতে বার বার কপি জাতীয় ফসল চাষ করবেন না ২. আক্রান্ত ক্ষেতে থেকে বীজ সংগ্রহ করবেন না পরবর্তীতে যা যা করবেন: ১. বপনের আগে প্রতি কেজি বীজে ২-৩ গ্রাম প্রোভ্যাক্স বা কার্বেন্ডাজিম মিশিয়ে বীজ শোধন করে নিন। ২. লাল মাটি বা অম্লীয় মাটির ক্ষেত্রে শতাংশ প্রতি চার কেজি হারে ডলোচুন প্রয়োগ করুন (প্রতি তিন বছরে একবার)

বিস্তারিত পড়ুন
পোকা দমনপোকামাকড় ও রোগবালাইরোগ দমন

বেগুনের ছাতরা পোকা

বেগুনের ছাতরা পোকা লক্ষণ পূর্ণ বয়স্ক ও বচ্চা উভয়ই পাতা কান্ড ও ডগার রস চুষে খায়্ । আক্রান্ত স্থান কালো ঝুলের মত দেখায় আক্রান্ত পাতা ঝরে পড়ে । প্রতিকার আক্রান্ত ডগা, পাতা ও ডাল দেখা মাত্রা তা সংগ্রহ করে ধ্বংস করা । আক্রমণ বেশি হলে প্রতি লিটার পানিতে ম্যালাথিয়ন বা সুমিথিয়ন ২ মিঃলি মারসাল ২০ ইসি ১মিঃলিঃ ডায়ামেথয়েট ৪০ ইসি ২মিঃলিঃ মিশিয়ে স্প্রে করা ।

বিস্তারিত পড়ুন