পোকামাকড় ও রোগবালাইফসল সংরক্ষণফসলের রোগ বালাই দমন

লিচুর ফল ঝরে যাওয়া সমস্যা

লিচুর ফল ঝরে যাওয়া সমস্যা ফল ঝরা লিচুর সাধারণ সমস্যা । আবহাওয়া শুষ্ক হলে বা গাছে হরমোনের অভাব থাকলে ফল ঝরে পড়তে পারে । গুটি অবস্থায় ফল ঝরতে পারে । ফল বাদামী থেকে কাল রং ধারণ করে । ব্যবস্থাপনা: • শুষ্ক আবহাওয়া বিরাজ করলে সেচের ব্যবস্থা করতে হবে । ফল মটর দানা এবং মার্বেল আকার অবস্থায় ম্যাগণল প্রতি ১০ লিটার পানিতে ৫ মিলি হারে মিশিয়ে স্প্রে করতে হবে ।গুটি বাধার পর ম্যাকচিলি প্রতি ১০ লিটার পানিতে ৩-৫ গ্রাম হারে মিশিয়ে গাছে স্প্রে করতে হবে । ...

বিস্তারিত পড়ুন
কৃষির প্রযুক্তিফসল সংরক্ষণফসলের রোগ বালাই দমন

আমের গুটি ঝরা রোধে করণীয়

আমের গুটি ঝরা রোধে করণীয় আমচাষীদের অনেক সময় নানা ধরনের সমস্যা মোকাবিলা করতে হয়। এর মধ্যে আমের গুটিঝরা অন্যতম। গাছে গুটি আসার পর নানা কারণে ঝরে যায়। এসব কারণ ও তার প্রতিকার নিয়ে আলোচনা করা হলো। প্রাকৃতিক কারণ : সাধারণত আমগাছে প্রতি মুকুলে ১০০০ থেকে ৬০০০টি পর্যন্ত পুরুষ ও স্ত্রী ফুল থাকে। তার মধ্যে প্রাথমিকভাবে প্রতি থোকায় জাতভেদে এক থেকে ৩০টি আমের গুটি ধরতে দেখা যায়। গুটি আসার ২৫ থেকে ৫০ দিনের মধ্যে প্রতি থোকায় মাত্র এক থেকে দু’টি গুটি থাকে। বাকি গুটি প্রাকৃতিক বা অভ্যন্তরীণ কারণে ঝরে যায়। তবে কোনো কোনো মুকুলে কদাচিৎ চার থেকে পাঁচটি আম ধরতে দেখা যায়। এ ক্ষেত্রে আমের আকার ছোট হয়। প্রতিকার : অতিরিক্ত গুটি ঝরে না পড়লে আমের আকার ছোট হয় এবং আমের গুণগতমান ও ফলন কমে যায়। গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিটি মুকুলে একটি করে গুটি থাকলে সে বছর আমের বাম্পার ফলন হয়। তবে প্রতি মুকুলে আমের সংখ্য...

বিস্তারিত পড়ুন
ফসল সংরক্ষণশস্য বীমা

টেকসই কৃষি উৎপাদন ও শস্য বীমা বিস্তারিত

টেকসই কৃষি উৎপাদন ও শস্য বীমা বিস্তারিত বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশ বর্তমানে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বহুমুখী উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যস্ত। বাংলাদেশে এ ধরনের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সমন্বয় সাধনের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে একটি ইউনিটও সৃষ্টি করা হয়েছে। খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য দেশে অধিকতর মাত্রায় খাদ্যশস্য উৎপাদনও জরুরি। এ ক্ষেত্রে বর্তমান বছরের অভিজ্ঞতা আশাব্যঞ্জক হয়নি। কারণ প্রথমে হাওরাঞ্চলে বন্যা হয়েছিল। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণেই হাওরে হঠাৎ বন্যা ও অন্যান্য অঞ্চলেও বন্যা হয় বলে অনেকে মনে করেন। আবহাওয়া দপ্তরও এমনটিই আভাস দিয়েছিল। এ ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা-২-এর জন্য বড় ধরনের বাধা। লক্ষ্যমাত্রা-২-এ করা টেকসই কৃষি উন্নয়নের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে। এ বছর বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত ও শ্রীলংকায় বন্যা হয়। কৃষকদের জলবায়ু পরিবর্তনজন...

বিস্তারিত পড়ুন
কৃষির প্রযুক্তিফসল সংরক্ষণ

কৃত্রিম মিলনে ফলন বাড়ান

কৃত্রিম মিলনে ফলন বাড়ান কুমড়ো এমন একটা সব্জি, যেটা ভারতের প্রায় সমস্ত রাজ্যে চাষ হয়। গরমেই চাষ হয় বেশি। ছায়ায় থাকতে পারে বলে অন্য ফসলের সঙ্গেও চাষ করা যায় কুমড়ো। হুগলি ও বর্ধমান জেলার আলুচাষিরা যেমন আলুর সঙ্গে কুমড়ো চাষ করেন। আসলে আলুর জমি কুমড়ো চাষের জন্য তৈরি হয়েই থাকে। কার্তিক-অগ্রহায়ন বা পৌষ মাসে আলু লাগানোর কিছু দিন পর সবে যখন গাছ বেরোচ্ছে, আলুর ভুঁড়োতে কুমড়োর বীজ লাগিয়ে দিতে হবে। এক-একটা আলুর ভুঁড়োতে ৩-৪টে কুমড়ো বীজ লাগাতে হবে। আলুগাছের বাড়বাড়ন্তের সময় কুমড়ো গাছ মোটামুটি সুপ্ত অবস্থায় থাকে। কুমড়ো গাছ তার শাখাপ্রশাখা নিয়ে ছড়িয়ে পড়ে না বলে মাটির ভিতরে আলুর কোনও ক্ষতি হয় না। আলু তোলা হয়ে গেলে কুমড়ো গাছের চারদিককার মাটি কুপিয়ে ঝুরঝুরে করে দিতে হবে এবং সব্জির বীজতলার মতো উঁচু করে গোলাকারে মাটি তুলে দিতে হবে। এবার বাড়বে কুমড়ো গাছ। বাগানে আলাদা ভাবেও বছরভরই কুমড়ো চাষ কর

বিস্তারিত পড়ুন
কৃষি তথ্যকৃষির তথ্যকৃষির প্রযুক্তিফসল সংরক্ষণ

এইবার একই জমিতে চার ফসল!

ভোলার দৌলতখান উপজেলার ১৫ জন কৃষক এক জমিতে বছরে চার ফসল উৎপাদন করে ব্যাপক সাফল্য পাওয়ায় অন্য কৃষকদের মাঝে তা ব্যাপক আগ্রহের জন্ম দিয়েছে। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউটের তত্ত্বাবধানে চার ফসলভিত্তিক ফসল বিন্যাস উদ্ভাবন কর্মসূচির আওতায় এ কার্যক্রম চলছে। বর্তমানে ভোলাসহ দেশের ১৫ টি জেলা এ কর্মসূচির আওতায় আনা হয়েছে। দৌলতখান উপজেলার কৃষক মো. আলাউদ্দিন, মো. হারুন, আনোয়ার হোসেন, শাহজাহান সরকার, মো. চুন্নু মিয়া জানান, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউটের বিজ্ঞানীদের পরামর্শে এক জমিতে বছরে চার ফসল আউশ, আমন,সরিষা ও মুগ চাষ করে তারা ব্যাপক সাফল্য পেয়েছেন।

বিস্তারিত পড়ুন