Improving Agribusiness Insurance & Farmers Law

মিষ্টি কুমড়ার মাছি পােকা দমন পদ্ধতি

সকল সাম্প্রতিক পোষ্ট নোটিফিকেশন পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

মিষ্টি কুমড়ার মাছি পােকা দমন পদ্ধতি

মিষ্টি কুমড়া চাষাবাদে একটি পরিচিত সমস্যা হচ্ছে মাছি পোকা, তাই আজকে আমরা আলোচনা করবো মিষ্টি কুমড়ার মাছি পােকা দমন পদ্ধতি নিয়ে।

স্ত্রী মাছি কচি ফলের নিচের দিকে ওভিপজিটর ঢুকিয়ে ডিম পাড়ে। ডিম পাড়ার স্থান থেকে পানির মত তরল পদার্থ বেড়িয়ে আসে যা শুকিয়ে বাদামী রং ধারন করে। ডিম থেকে কীড়া বের হয়ে ফলের শাস খেতে শুরু করে এবং ফল বিকৃত হয়ে যায় এবং হলুদ হয়ে পঁচে ঝড়ে যায়।

প্রতিকার :

১. আক্রান্ত ফল বা ফুল সংগ্রহ করে ধ্বংশ করা বা পুড়ে ফেলা।
২. কচি ফল কাগজ বা পলিথিন দিয়ে ঢেকে দেয়া।
৩. প্রথম ফুল আসা মাত্র কুমড়া জাতীয় ফসলের ফেরােমন ফাঁদ স্থাপন করা। প্রতি ১০ শতাংশের জন্য ৩ টি হারে।
৪.আম বা খেজুরের রসে সামান্য বিষ মিশিয়ে তা বােতলে রেখে জানালা কেটে দিয়ে ক্ষেতের মাঝে মাঝে স্থাপন করা।
৫. পাকা মিষ্টি কুমড়া বা কুমড়া জাতীয় ফল ১০০ গ্রাম কুচি কুচি করে কেটে তাতে সামান্য বিষ (যেমন- সপসিন ০.২৫ গ্রাম) মিশিয়ে তা দিয়ে বিষটোপ তৈরী করে মাটির পাত্রে করে ক্ষেতের মাঝে মাঝে স্থাপন করা।
৬. সাইপারমেথ্রিন গ্রুপের কীটনাশক যেমন: রিপকর্ড বা কট বা রেলােথ্রিন ১ মি.লি. / লি. হারে পানিতে মিশিয়ে স্প্রে করা।

পরবর্তীতে যা যা করবেন না :

১. স্প্রে করার পর ১৫ দিনের মধ্যে সেই সবজি খাবেন না বা বিক্রি করবেন না

পরবর্তীতে যা যা করবেন:

১. উত্তমরুপে জমি চাষ দিয়ে পােকার পুত্তলি পাখিদের খাবার সুযােগ করে দিন।

সকল সাম্প্রতিক পোষ্ট নোটিফিকেশন পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

Comments are closed.