Agribusiness Insurance, Farmers Law

টবে গন্ধরাজ ফুল চাষ

টবে গন্ধরাজ ফুল চাষ

শহরের বাড়িতে বাড়িতে ছাদ কৃষির জয়জয়কার ।প্রিয় পাঠক,এর পরিপ্রেক্ষিতে আজ আমরা আলোচনা করবো টবে গন্ধরাজ ফুল চাষ পদ্ধতি নিয়ে।সবাই মনোযোগ দিয়ে পড়ুন এবং শেয়ার করে দিন অন্য ছাদ বাগান প্রেমী বন্ধুদের কাছে।

শীতকালীন ফুল হিসেবে গন্ধরাজ ফুলের খ্যাতি সর্ব জন বিদিত। তাই আজ আমরা এ ফুলের চাষ পদ্ধতি আলোচনা করব।

টবঃ
গন্ধরাজ চাষের জন্য ২৫ সেমি উচ্চতার টব হলে ভাল হয়।

জলবায়ু:
গন্ধরাজ গাছের চাষের জন্য আর্দ্র মাটি প্রয়োজন। তবে মাটি যাতে বেশী ভিজে কাদা কাদা না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আর কোনো কারণে মাটি স্যাঁতসেঁতে থাকলে সেই কয়দিন জল দেওয়ার প্রয়োজন নেই। এছাড়া প্রতিদিন নিয়ম করে জল দেওয়া উচিৎ।

মাটি তৈরি ও সার প্রয়োগঃ
যে কোনও মাটিতেই গন্ধরাজ গাছ জন্মায়। তবে দোঁয়াশ ও বেলে মাটিতে গন্ধরাজ গাছের ভাল চাষ হয়। আপনি যদি টবে চাষ করতে চান তাহলে প্রথমেই যেটি করবেন, পরিমান মতো  দো-আঁশ বা বেলে মাটি,  এর সাথে গোবর সার,স্টেরামিল মিশিয়ে নিন।  এতে টবের মাটি ভাল থাকবে। গোবর সার, চাপান সার ও তরল সার এই গাছের জন্য ভাল। নিমের গুড়ো খোল, কাঠের ভষ্ম, গুঁড়ো হাড়, ও গোবড় সার মিশিয়ে তৈরী করুণ চাপান সার।

জাত বাছাইঃ
লুসিজ,কিরকাই ভালো চাষযোগ্য জাত।

পরিচর্যা:
বসন্তকাল থেকে বর্ষাকাল পর্যন্ত এই ফুল হয়। খেয়াল রাখতে হবে গাছে যেন চড়া রোদ না লাগে। হাল্কা ছায়ায় গাছ রাখতে হবে। আর সার হিসেবে চাপান সার বা তরল সার দিতে হবে। গন্ধরাজ গাছে জল দেওয়ার সময় খেয়াল রাখতে হবে যাতে গোড়ায় জল না জমে।  মাসে দুবার মাটি খুঁচিয়ে দিতে হবে। মাটি যদি কোনো কারণে স্যাঁতস্যাঁতে হয়, তাহলে কলি ঝরে যাবে, পাতা ঝরে যাবে।

Comments are closed.