কুঁচিয়া চাষ

কুচিয়া মাছ চাষ পদ্ধতি

কুচিয়া মাছ চাষ পদ্ধতি বাণিজ্যিকভাবে কুচিয়া মাছ চাষ হচ্ছে আদমদীঘিতে বগুড়া জেলার আদমদীঘি থেকে প্রতি মাসে প্রায় অর্ধকোটি টাকার কুচিয়া মাছ বিদেশে রফতানি হচ্ছে। কুচিয়া মাছকে ঘিরে আদমদীঘি উপজেলায় ৩টি আড়ত গড়ে উঠেছে। প্রতিটি আড়ত থেকে প্রতি সপ্তাহে ৫শ’ কেজি থেকে ৭শ’ কেজি মাছ বিক্রি হয়। এসব আড়তদার কুচিয়া মাছ ধরার জন্য শ্রমিক নিয়োগ করে রেখেছেন। আড়তদাররা জানান, তারা সরাসরি কুচিয়া মাছ বিদেশে পাঠাতে পারেন না। রফতানিকারকদের কাছে তারা এই মাছ বিক্রি করেন। আর রফতানিকারকরা কুচিয়া মাছ চীন, হংকং, জাপান ও থাইল্যান্ডে রফতানি করেন। কুচিয়া মাছ অর্থনৈতিকভাবে লাভজনক হলেও আদমদীঘিতে উত্পাদন বৃদ্ধির জন্য কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। যদি বাণিজ্যিকভাবে কুচিয়া মাছের উত্পাদন করা যায়, তাহলে জাতীয় অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখবে এবং এলাকায় কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। সরেজমিন আদমদীঘির আড়ত ঘুরে জানা গেছে, বছরের নভেম্বর থেকে জুন মাস পর্য

বিস্তারিত পড়ুন
কুঁচিয়া চাষকুঁচিয়া চাষকৃষি তথ্যকৃষি প্রযুক্তিমৎস্যসম্পদ

কুচিয়া মাছ চাষ করে হোন স্বাবলম্বী

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় মৎস্য অধিপ্তরের সহযোগীতায় বাংলাদেশের নির্বাচিত এলাকায় কুচিয়া ও কাকড়া চাষ এবং গবেষনা প্রকল্পের আওতায় বাণিজ্যিকভাবে শুরু করেছেন কুইচ্চা মাছের চাষ। https://youtu.be/14oL8tYHGLc ভিডিও দিপ্ত টিভি শুধু তাই নয় চলনবিল এলাকার তাড়াশ, রায়গঞ্জ, গুরুদাশপুর, সিংড়া, চাটমোহর, ভাঙ্গুড়া ও ফরিদপুরসহ বেশ কিছু গ্রামে কুচিয়া চাষ অনেকেই বলে জানা গেছে। কুচিয়া দেখতে সাপের মত। এর রয়েছে বিভিন্ন নাম কুঁচে, কুঁচে মাছ, কুচিয়া, কুইচ্চা বা কুচে বাইম। এটি একটি ইল-প্রজাতির মাছ। Sybranchidae পরিবারের অন্তর্গত এই মাছটির বৈজ্ঞানিক নাম Monopterus cuchia। কুচিয়া সাধারণত কাদা মাটিতে থাকে। কাদা খুড়ে খুড়ে এগুলো সংগ্রহ করতে হয়। কিন্তু বর্তমানে সরকারী পৃষপোষকতায় চলনবিল তথা তাড়াশ উপজেলায় পাকা ড্রামে পদ্ধতিতে কুচিয়া প্রজনন ও চাষ শুরু হয়েছে। চলনবিল এলাকায় এ মাছটি অত্যন্ত সু-স্বাদু মাছ হিসেবে পরিচিত। তাড়াশে ...

বিস্তারিত পড়ুন