কবুতরপ্রানিসম্পদ

ময়ূরী কবুতর পালন করে আয়

ময়ূরী কবুতর পালন করে আয় একটি ২০ জোড়া ময়ূরী কবুতরের খামার থেকে প্রতিমাসে গড়ে ১০০০০ থেকে ১৫০০০ টাকা আয় করা সম্ভব । এখানে ময়ূরী কবুতর পালন করে আয় এর বিস্তারিত তথ্য দেয়া হলো। এবং ২০ জোড়ার একটি ময়ূরী কবুতরের খামারের লাভ ক্ষতির হিসাব তুলে ধরা হলো। ২০ জোড়া ময়ূরী কবুতরের খামারে প্রায় ৬০০০০ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে । এরকম একটি খামার যে কেউ ইচ্ছা থাকলে তৈরি করতে পারেন। ছাত্র , গৃহিণী, বা চাকরিজীবী যেকেউ যদি দিনে ১ ঘন্টা করে সময় দিতে পারেন তবে এরকম একটি কবুতরের খামার তৈরি করতে পারেন। প্রথমে খামার স্থাপন করতে খরচের হিসাব…. ১, প্রতি জোড়া ময়ূরী কবুতরের দাম ২০০০ টাকা করে ২০ জোড়ার দাম হয় ৪০০০০ টাকা। ২, বাসস্থান নির্মাণ বা খাঁচায় পালন করলে খাঁচার দাম ৩০০ প্রতি পিস, টোটাল ৬০০০ টাকা। ৩, ঔষধ ও খাবার সহ বাৎসরিক সব অন্যান্য খরচ বাকি ১৪০০০ টাকার মধ্যে হয়ে যাবে। বাৎসরিক উৎপাদন: ...

বিস্তারিত পড়ুন
কবুতরগবাদিপশুর রোগ বালাইপাখীপ্রাণীর রোগবালাই দমনপ্রানিসম্পদরোগ দমন

কবুতরের কিছু রোগ ও এর প্রতিকার

কবুতরের কিছু রোগ ও এর প্রতিকার আবহমানকাল থেকে বাংলাদেশের মানুষ গ্রামীণ পরিবেশে দু’চারটা করে দেশী কবুতর পালন করত। বিদেশী দামী কবুতরও গ্রামে ও শহরে দু’জায়গাতেই পালন করছে। শহরে শখের বশে দু’চারটা করে বিদেশী বিভিন্ন জাতের কবুতর পালন করলেও আজকাল অর্থনৈতিক লাভের আশায় অনেকেই বেশ বড় করে কবুতরের খামার করে আসছে।কবুতর একটি অতি সংবেদনশীল পাখি যা সহজেই বিভিন্ন ধরনের জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে। অতি সতর্কতার সাথে সঠিকভাবে যত্ন না করলে সাধারনতঃ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে। কবুতরের ব্যাকটেরিয়াজনিত রোগ সাধারনতঃ নিম্নলিখিত কারণে হয়ে থাকে- ক) খাদ্যদূষণ জনিত কারণেখ) পানিদূষণ জনিত কারণেগ) বিভিন্ন ধরনের পোকামাকড়ের কামড়ের কারণেঘ) কোন স্থানে ক্ষতের সৃষ্টি হলেঙ) শ্বাসতন্ত্রের সমস্যার জন্য নাক দিয়ে শ্লেষ্মা বা নিঃসৃত পদার্থের কারণে ইত্যাদি। কবুতরের ভাইরাসজনিত রোগ নিম্নলি...

বিস্তারিত পড়ুন
কবুতর

কবুতর পালনের আধুনিক কলাকৌশল

কবুতর পালনের আধুনিক কলাকৌশল গৃহপালিত বা পোষা পাখিদের মধ্যে কবুতর অন্যতম। সুপ্রাচীনকাল থেকে সুস্বাদু মাংস, সংবাদ প্রেরণ ও শখের জন্য কবুতর পালন করা হচ্ছে। ইদানিং অনেক লোক কবুতর পালনকে ব্যবসায়িক দৃষ্টিভঙ্গিতে গ্রহণ করেছেন। কবুতর পালনের গুরুত্ব ঃ কবুতর অত্যন্ত নিরীহ ও শান্ত প্রাণী এবং সহজে পোষ মানে। আমাদের দেশের জলবায়ু ও বিস্তীর্ণ শস্যক্ষেত কবুতর পালনের উপযোগী। কবুতর পালনের গুরুত্ব ক্রমান্বয়ে তুলে ধরা হলো- এক জোড়া কবুতর ১২ মাসে ১৩ জোড়া পর্যন্ত বাচ্চা দেয়  কবুতরের মাংস সুস্বাদু ও বলকারক বলে সদ্য রোগমুক্ত ও প্রসব পরবর্তী ব্যক্তির জন্য উপকারী কোন মহৎ কাজের শুরুতে ‘শান্তির প্রতিক’ কবুতর ছেড়ে দেয়া হয় প্রজনন, শরীরবৃত্তিয় ও অন্যান্য অনেক বৈজ্ঞানিক গবেষণা কর্মে কবুতর ব্যবহার করা হয় স্বল্পখরচ উৎকৃষ্ট মানের মাংস ও আয়ের উৎসরূপে কবুতর পালন লাভজনক উদ্যোগ; কবুতর পালন কার্যক্রম ক্রমেই

বিস্তারিত পড়ুন
কবুতরকৃষি উদ্যোক্তাকৃষির তথ্যকৃষির প্রযুক্তিপাখীপ্রানিসম্পদ

শখের পাখি থেকে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা উপার্জন

পাখি পালন, শখের পাখি থেকে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা উপার্জন   এক সময় শখের বশে বনে বাদাড়ে ঘুরে বেড়াতেন তিনি। বনে বাদাড়ে ঘুরে বেড়ানোরও একটা কারণ ছিল তার। কারণটি হলো পাখি শিকার করা।   গাছে গাছে বাগানে বাগানে ঘুরে ঘুরে পাখি ও পাখির বাচ্চা ধরে এনে পালন করা ছিল তার নেশা। এই নেশা থেকেই বর্তমানে পাখি পালন করা এখন তার পেশায় পরিণত হয়েছে।   বলা হচ্ছে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার খলিসাকুন্ডি ইউনিয়নের আংদিয়া গ্রামের টুটুল সেনের কথা। তার বাবার নাম ভোলানাথ সেন ও মায়ের নাম আল্পনা রানী সেন।   লেখাপড়ায় বেশিদূর এগুতে পারেননি টুটুল, সংসারের কাজ কর্মেও তেমন মন ছিলো না তার। পাখি পালনের নেশায় মাধ্যমিক পাশ করেই থমকে যায় তার লেখাপড়া। পরবর্তীতে তিনি ঠিক করেন পাখি পালনকেই তিনি পেশা হিসেবে বেছে নেবেন।   তারপর দেশি বিদেশি বিভিন্ন জাতের পাখি নিয়ে ছোট আকারে পাখি পালনের জন্য নিজের বাড়িতেই এক

বিস্তারিত পড়ুন
কবুতরপাখী

কবুতর পালন

ভূমিকাঃ পৃথিবীতে প্রায় ১২০ জাতের কবুতর পাওয়া যায়। বাংলাদেশে প্রায় ২০ প্রকার কবুতর রয়েছে। বাংলাদেশের সর্বত্র এসকল কবুতর রয়েছে। বাংলাদেশের জলবায়ু এবং বিস্তীর্ণ শষ্যক্ষেত্র কবুতর পালনের জন্য অত্যন্ত উপযোগী। পূর্বে কবুতরকে সংবাদ বাহক, খেলার পাখি হিসাবে ব্যবহার করা হতো। কিন্তু বর্তমানে এটা পরিবারের পুষ্টি সরবরাহ, সমৃদ্ধি, শোভাবর্ধনকারী এবং বিকল্প আয়ের উৎস হিসাবে ব্যবহৃত হচেছ। এদের সুষ্ট পরিচর্যা, রক্ষণাবেক্ষণ এবং ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে সঠিকভাবে প্রতিপালন করে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখা যায়। কবুতরের জাতঃ মাংশ উৎপাদনকারী রেসিং ফ্লাইং শোভাবর্ধনকারী দেশী ১. কিং- সাদা, কালো, সিলভার, হলুদ ও নীল ২. কারনিউ ৩. মনডেইন- সুইস, ফ্রেন্স ৪. আমেরিকান জায়ান্ট হোমার ৫. রান্ট ১.  রেসিং হামার ২. হর্স ম্যান ১. বার্মিংহাম রোলার ২. ফ্লাইং টিপলার/ ফ্লাইং হোমার ৩. থাম্বলার ৪. কিউমুলেট ৫. হর্স ম্যান ১.

বিস্তারিত পড়ুন