মুরগি

পারিবারিক পর্যায়ে খরগোশ পালন

পারিবারিক পর্যায়ে খরগোশ পালন

পারিবারিক পর্যায়ে খরগোশ পালন ভূমিকা জনবহুল বাংলাদেশে খাদ্য ঘাটতি একটি প্রধান সমস্যা। বিগত বছরগুলোতে দেখা যায় উৎপাদিত প্রাণিজ আমিষ ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার চাহিদা মিটাতে সক্ষম হচ্ছে না। কিন্তু মানুষের পুষ্টি চাহিদা পূরণে প্রাণিজ আমিষ যথাঃ দুধ, ডিম, মাংস ইত্যাদির গুরুত্ব ব্যাপক বা অপরিসীম। প্রতিদিন মাথাপিছু প্রাণিজ আমিষের প্রয়োজন ২৫ গ্রাম এবং প্রাপ্যতা ৫.৭ গ্রাম/জন। ফলে মানুষের স্বাভাবিক বৃদ্ধি

গরমে,বর্ষায় ও শীতকালীন সময়ে মুরগী পালন বিষয়ক তথ্য

গরমে,বর্ষায় ও শীতকালীন সময়ে মুরগী পালন বিষয়ক তথ্য গরমে পোল্ট্রি খামারের বাড়তি যত্ন প্রাণীজ আমিষের বড় একটা অংশ আসে পোল্ট্রি শিল্প হতে। প্রায় অর্ধ কোটি মানুষের জীবন-জীবিকা এই শিল্পের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত। তাই এ শিল্পের সুদৃঢ় ভবিষ্যত্ চিন্তা করে সময়োপযোগী পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি। গরম কাল এ পোল্ট্রি খামারের বিশেষ যত্ন না নিলে কমে