টমেটো চাষে লাভবান জামালপুরের কৃষক

টমেটো চাষে লাভবান জামালপুরের কৃষক

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবার জামালপুরে টমেটো চাষে ব্যাপক সাফল্য পেয়েছে কৃষকেরা। গত কয়েকদিন ধরে এলাকার কৃষকরা তাদের উৎপাদিত শীতকালীন ফসল টমেটো বিভিন্ন হাট-বাজারে বিক্রি শুরু করেছেন। ইতোমধ্যে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার পাইকারি ক্রেতারা ছুটে আসছেন জামালপুরে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, জেলার ৭টি উপজেলার বেশীর ভাগ এলাকা জুড়ে চরাঞ্চল। এসব চরাঞ্চলের মাটিতে টমেটো চাষ বেশ উপযোগী। এবার জামালপুর জেলার বিভিন্ন চরাঞ্চলের প্রায় ১ হাজার ৩৯৯ হেক্টর জমিতে টমেটোর চাষ হয়েছে। সবচেয়ে বেশী টমেটো উৎপাদন হয় ব্রহ্মপুত্র নদের তীরবর্তী জামালপুর সদর উপজেলার লক্ষীরচর নান্দিনা বাজার এলাকায়। এখানে রেল ও সড়ক পথের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভাল থাকায়, ক্রেতারা সরাসরি নান্দিনা বাজার থেকে ক্রয় করে রেল, ট্রাক ও পিকআপভ্যানে করে প্রতিনিয়ত নিয়ে যাচ্ছে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে।

সরেজমিনে সদর উপজেলার নান্দিনা হাট ঘুরে জানা যায়, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত পাইকাররা নান্দিনা হাট থেকে প্রতিদিন প্রায় শতাধিক ট্রাক টমেটো নিয়ে যাচ্ছে। বতর্মানে ১ হাজার ৫০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৭০০ টাকা মণ দরে টমেটো বিক্রি হচ্ছে। যদিও এখনও চাহিদার তুলনায় বাজারে টমেটো সরবরাহ কম থাকায় বেশি দামে টমেটো বিক্রি হচ্ছে।

সদর উপজেলার নান্দিনা হাটে টমেটো বিক্রি করতে আসা লক্ষ্মীরচরের কৃষক আসাদ আলী, রফিকুল ও কাজল মিয়া জানায়, ‘অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার টমেটোর ফলন ভাল হয়েছে।  ভালো দামেও টমেটোর বিক্রি করতে পারছি। তাই আমরা খুশি।’

নান্দিনা বাজারে টমেটো কিনতে আসা ব্যবসায়ী রজব আলী, আহসান ও মমিন বলেন, ‘টমেটোর ব্যবসায় এবার ভালো লাভ হচ্ছে। আমরা প্রতিদিন প্রায় ৫/৬ ট্রাক টমেটো রাজধানীতে নিয়ে বিক্রি করছি। ঢাকায় এক ট্রাক টমেটো নিতে ভাড়া নিচ্ছে প্রায় ২০/২২ হাজার টাকা। তারপরও আমাদের লাভ হচ্ছে।’

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘অবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবার জামালপুরে টমেটোর বাম্পার ফলন হয়েছে। আগাম জাতের টমেটো বিক্রিতে দামও ভাল পাচ্ছেন কৃষকরা। প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে কৃষকরা এবার  লাভবান হবেন।’