মাংস আমদানির বিপক্ষে আমাদের অবস্থান উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমদানির যদি কোনো সুযোগ থাকে তাহলে সেটি রোধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইন থাকলে তা পরিবর্তন করা হবে। দেশি মাংস যাতে কম দামে মানুষ পেতে পারে এবং আমাদের দেশের খামারিরা যাতে টিকে থাকতে পারে সেটাই সরকারের লক্ষ্যে।

মাংস আমদানি করবে না সরকার: সম্ভাবনা দেশীয় খামারিদের

কৃষি সংবাদ গবাদি পশু পালন প্রানিসম্পদ

মাংস আমদানি করবে না সরকার: সম্ভাবনা দেশীয় খামারিদের

মাংস আমদানি বন্ধে সরকার ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ।

বুধবার (১৭ জানুয়ারি) সচিবালয়ের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ২০১৮ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি।

 

মাংস আমদানির বিপক্ষে আমাদের অবস্থান উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমদানির যদি কোনো সুযোগ থাকে তাহলে সেটি রোধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইন থাকলে তা পরিবর্তন করা হবে। দেশি মাংস যাতে কম দামে মানুষ পেতে পারে এবং আমাদের দেশের খামারিরা যাতে টিকে থাকতে পারে সেটাই সরকারের লক্ষ্যে।

 

‘বাড়াবো প্রাণিজ আমিষ, গড়বো দেশ স্বাস্থ্য সেবা সমৃদ্ধির বাংলাদেশ’ স্লোগান নিয়ে এবারের প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ শুরু হতে যাচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী।

 

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে প্রাণিসম্পদ উন্নয়নে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির বহুমাত্রিক পদক্ষেপ গ্রহণ করায় গত ৯ বছরে দুধ, ডিম ও মাংসের উৎপাদন বেড়েছে। ২০১৬-১৭ সালে এ উৎপাদন দাঁড়িয়েছে দুধ ৯৩ লাখ মেট্রিক টন, ডিম এক হাজার ৪৯৩ কোটি এবং মাংস ৭১ লাখ মেট্রিক টন। দেশে অর্থনৈতিক উন্নয়নে বড় ভূমিকা রাখছে এ প্রাণিসম্পদ খাত।

 

তিনি আরও বলেন, দেশে সার্বিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনকারী এ সেক্টরের কর্মকাণ্ডে অধিক সংখ্যক জনগণকে সম্পৃক্ত করতে আয়োজন করা হয়েছে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ।

 

আগামী ২০ থেকে ২৫ জানুয়ারি দেশব্যাপী সেবা সপ্তাহ উদযাপন করা হবে। এর উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন অডিটরিয়ামে বিকেল ৩টায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এর আগে, প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে সকালে প্রাণিসম্পদ অধিদফতর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হবে।

আরোও পড়ুন  কনকনে শীতে মরে গেল ৫০০ মুরগি প্রয়োজন কৃষি ইনস্যুরেন্স