কৃষি জমি ও বন উজাড় করে কারখানা নয়: প্রধানমন্ত্রী

কৃষি জমি দখল করে, বন-জঙ্গল উজাড় করে শিল্প কারখানা গড়ে তোলার সুযোগ দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, শিল্প কারখানা করতে হলে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে যেতে হবে। সেখানে সব রকম সুযোগ সুবিধা দেওয়া হবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে কৃষক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক সভায় প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সারাদেশে একশটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যেখানে সেখানে জমি কিনে ইন্ডাস্ট্রি গড়ে তোলা যাবে না। এতে কৃষি জমি নষ্ট হয়, বন নষ্ট হয়। আগামীতে যারাই শিল্প করবে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে যেতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, যেখানে সেখানে শিল্প গড়ে তুলে বলা হয়, বিদ্যুৎ-গ্যাস নেই। যেখানে এই সুযোগ নেই সেখানে আপনারা যান কেন?

৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে আওয়ামী লীগ কৃষি বিষয়ক সুপরিকল্পনা গড়ে তোলে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা কৃষিবান্ধব ব্যবস্থা নিয়েছি। একটি বাড়ি একটি খামার করেছি আমরা। দীর্ঘদিন গবেষণা করে এটি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। যার পাইলট প্রকল্প ছিল গাজীপুরের শ্রীপুরে। তবে ২০০১ সালে সবই ধ্বংস করে দিলো বিএনপি-জামায়াত।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা কৃষি উপকরণ কার্ড দিয়েছি, যা ২ কোটি কৃষক পাচ্ছেন। এছাড়া দেওয়া হচ্ছে ১০ টাকায় ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সুবিধা, যা এক কোটি কৃষক পাচ্ছেন। আমরা দেশি মাছের উৎপাদন বৃদ্ধিতে গবেষণা চালু করি।

সোর্স- বাংলা ট্রিবিউন