বাংলাদেশি দুগ্ধ চাষিদের সহায়তায় ইউএসএইড

বাংলাদেশি দুগ্ধ চাষিদের সহায়তায় ইউএসএইড

সম্প্রতি ইউনাইটেড স্টেটস এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টের (ইউএসএইড) মর্যাদাপূর্ণ প্রোগ্রাম ‘ফিড দ্য ফিউচার পার্টনারিং ফর ইনোভেশন’র সঙ্গে অংশীদারিত্বের ঘোষণা দিয়েছে প্রমিথিয়ান পাওয়ার সিস্টেমস।

এর ফলে বাংলাদেশসহ বিশ্বের যেকোনো প্রান্তের উদ্ভাবনী কৃষিজ পণ্য বাণিজ্যিককরণের মাধ্যমে লাভজনক এবং টেকসই ব্যবসা গড়ে তুলতে সাহায্য করবে। যা নিম্ন আয়ের দুগ্ধ-চাষিদের জন্য উপকারে আসবে বলে আশা উদ্যোক্তাদের।

কঠোর স্ক্রিনিং প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মূল্যায়ন করা হয়ে থাকে অংশীদারদের। এভাবেই বিশ্বজুড়ে ১০০টিরও বেশি সম্ভাব্য অংশীদারদের মতো বাংলাদেশ থেকে অংশীদার হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে প্রমেথিয়ান পাওয়ার সিস্টেমস।

কৃষি প্রযুক্তি চিহ্নিতকরণ এবং বাজারজাতকরণের মাধ্যমে দুগ্ধ চাষিদের ক্ষতি কমিয়ে আয় বৃদ্ধিকে কেন্দ্র করে এবং কিছু বিশেষ নির্ণায়কের উপর ভিত্তি করে এই নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়।

এই অংশীদারিত্বের আওতায় বাংলাদেশের হাজার হাজার নিম্ন আয়ের দুগ্ধ চাষি প্রমিথিয়ান পাওয়ার সিস্টেমসের কোল্ড চেইন প্রক্রিয়ায় আওতাভুক্ত হতে পারবেন। এটি বাস্তবায়ন করতে দুধ শীতলীকরণে প্রমিথিয়ান তাদের পেটেন্ট করা তাপশক্তি সঞ্চয় প্রযুক্তি স্থাপন করে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের নিম্ন আয়ের দুগ্ধ চাষিদের থেকে নিয়মিত দুধ সংগ্রহ করবে। এটি চাষিদের আয় বৃদ্ধির পাশাপাশি বেশি মাত্রায় দুধ উৎপাদনে দুগ্ধ চাষিদের আগ্রহী করে তুলতে সহায়তা করবে।

পৃথিবীর বিভিন্ন অঞ্চলের প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে কোল্ড চেইন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সমাধান দেয়ার ক্ষেত্রে প্রমিথিয়ান পাওয়ার সিস্টেমস অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একটি প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটি ইতোমধ্যে ভারতে বেশ শক্ত অবস্থান নিশ্চিত করেছে ও দক্ষিণ এশিয়া এবং আফ্রিকার অন্য দেশগুলোর দুগ্ধ খাতেও কাজ করার সুযোগ খুঁজছে। যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনে প্রমিথিয়ান পাওয়ার সিস্টেমসের একটি গবেষণা কেন্দ্র এবং ভারতের পুনেতে একটি ডিজাইন ও পণ্য উৎপাদন করার ব্যবস্থা রয়েছে।

ভারত, শ্রীলঙ্কা এবং বাংলাদেশের শতাধিক গ্রামে ডিজেল জেনারেটর ছাড়াই তাপশক্তি সঞ্চয় প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটির চিলিং সল্যুশন স্থাপন করা হয়েছে

প্রমিথিয়ান পাওয়ার সিস্টেমসের বিক্রয় ও বিপণন বিভাগের পরিচালক যোফি যোসেফ বলেন, বাংলাদেশে একটি নিবেদিত দল নিয়োজিত করেছি, যাদের মাধ্যমে আমরা দুগ্ধ চাষিদের আরও বেশি কার্যকর এবং লাভজনক পদ্ধতিতে মানসম্মত দুগ্ধ প্রক্রিয়াজাতকরণের বিষয়গুলো শেখাতে চাই।

বাংলাদেশের দুগ্ধ উৎপাদন প্রক্রিয়ায় নিয়োজিত জনগোষ্ঠী এবং চাষিদের আয় বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখতে পারায় আমরা আনন্দিত।

সূত্র- জাগো নিউজ